কিভাবে কমলালেবু চাষ করবেন

0
213
কমলালেবু চাষ

কমলালেবু একটি টক স্বাদযুক্ত খাদ্য দ্রব্য। এটিতে ভিটামিন সি এর পরিমাণ বেশি থাকায় পরিবারের সকল সদস্যরাই কমলালেবু খাদ্যটি গ্রহন করে থাকে। সারা বিশ্বে এর চাহিদা রয়েছে। কমলালেবু মানুষের কাছে একটি পছন্দের খাদ্য দ্রব্য। এই ব্যবসাটি শুরু করতে বাড়তি কোনো পরিশ্রমের প্রয়োজন হয় না। খুব সহজেই কমলালেবু চাষ করা যায়। কমলালেবু চাষ করে বিদেশেও রপ্তানি করা যায়। এতে স্বল্প মূলধন ও কোনো প্রকার বাড়তি যন্ত্রাংশ ছাড়াই কমলালেবু চাষ করে প্রতি বছর প্রচুর অর্থ উর্পাজন করা যায়। কমলালেবু ব্যবসাটি নারীরাও বাড়ির পাশের খালি জমিতে শুরু করে অনেক টাকা আয় করতে পারেন। এটি একটি লাভজনক ব্যবসার ধারণা।

অবস্থান: এই ব্যবসাটি শুরু করতে বেশি জায়গার প্রয়োজন হয় না। তবে লেবুর চাষের উপযোগী জমি ক্রয় করতে হবে। বাড়ির পাশে খালি জায়গাতেও এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়।

কেন এই ব্যবসাটি শুরু করবেন: এই ব্যবসাটি শুরু করতে বেশি পরিশ্রমের প্রয়োজন হয় না। এই ব্যবসাটি একটি লাভজনক ব্যবসা হিসেবে পরিচিত। এই ব্যবসায়ের জন্য বেশি পুঁজির প্রয়োজন হয় না। অতি সহজেই এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়। এটি একটি জনপ্রিয় ব্যবসাক্ষেত্র। এই ব্যবসাতে ঝুকির পরিমান নেই বললেই চলে। কমলালেবু একবার চাষ করলে পরবর্তীতে চাষ করতে বেশি টাকা ব্যায় হয় না।

সম্ভাব্য পুঁজি: এই ব্যবসাটি করতে বেশি পুঁজির প্রয়োজন হয় না। ৮০০০০ টাকা থেকে ১০০০০০ টাকা পুঁজি বিনিয়োগ করলে এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়।

কিভাবে কমলালেবু চাষ শুরু করবেন

এই ব্যবসাটি শুরু করতে প্রথমে জমি নির্ধারন করতে হবে। যে জায়গাতে আবহাওয়ার তাপমাত্রা১৩ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের উপরে এবং ৩৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের নিচে থাকে সেখানে কমলালেবু চাষ করার জন্য উপযুক্ত একটি স্থান। তবে বেলে এবং দোঁআশ মাটিতে কমলালেবু চাষ করা ভালো।

কমলালেবু চাষ ও বাজারজাত করণ

কমলালেবুর চাহিদা বাজারে দিন দিন বেড়েই চলেছে। শহর এবং গ্রামের প্রতিটি মানুষই এই পণ্যের ভোক্তা। খামার থেকে পাইকার এসে কমলা নিয়ে যায়।

যোগ্যতা: এই ব্যবসাটি শুরু করতে তেমন কোন যোগ্যতার প্রয়োজন হয় না। তবে চারা রোপণের উপর অভিজ্ঞতা থাকা প্রয়োজন।

সম্ভাব্য আয়: এই ব্যবসাটি শুরু করে অনেক টাকা আয় করা যায়। কমলালেবু চাষ করে প্রতি মৌসুমে ৪০০০০ টাকা থেকে ৫০০০০ টাকা আয় করা সম্ভব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here