কিভাবে নির্মাণ সামগ্রী বিক্রির ব্যবসা শুরু করবেন?

0
245

আবাসন খাতের চাহিদা বৃদ্ধির সাথে সংগতি রেখে বেড়ে চলছে নির্মাণ সামগ্রী চাহিদা। গ্রাম এবং শহর সবর্ত্রই নিমার্ণ সামগ্রী এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। আবাসিক বাড়ি বা অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণে নির্মাণ সামগ্রীর বিকল্প নেই। নির্মাণ সামগ্রীর প্রধান উপকরণ ইটবালু,সিমেন্ট ইত্যাদির পাশাপাশি ভেনটিলেটরছোট পিলারবালতিকনুই এই সকল পণ্যের সমাহার ঘটিয়ে যেকোনো পরিশ্রমী ও আত্মত্যয়ী উদ্যোক্তা লাভজনক এ ব্যবসাটি প্রতিষ্ঠা করতে পারেন।

মাঝারি মানের মূলধন আর নির্মাণ উপকরণ গুলো সংরক্ষণের জন্য ছোট একটি স্থান হলে দিব্যি চালিয়ে যেতে পারেন ব্যবসাটি। নির্মাণ সামগ্রীর ব্যবসা করে নিজের একটি সম্মানজনক কর্মসংস্থানের পাশাপাশি দক্ষ মিস্ত্রি এবং নির্মাণ শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে বহু লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। সততাপরিশ্রম আর কর্মনিষ্ঠা এই ব্যবসাটি আপনাকে সফল ও লাভবান হতে সহায়তা করবে। তাইযেকোনো তরুণ ও বেকার উদ্যোক্তা নিশ্চিত বিনিয়োগ করে এ ব্যবসাটি নির্বাহ করতে পারেন।

কোথায় শুরু করবেন?

যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো এবং প্রচুর লোক সমাগম হয় এমন কোন বাজারে এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়। তবে ব্যবসার স্থান নির্ধারণ করার সময় সামনে কিছুটা বড় জায়গা থাকা জরুরী। জানুন – ব্যবসা শুরু করার উত্তম সময় কখন? 

প্রাথমিক পুঁজি কত লাগবে?

এই ব্যবসাটি শুরু করতে আনুমানিক ৭০০০০০ টাকা থেকে ১৬০০০০০ টাকা পর্যন্ত পুজিঁ বিনিয়োগ করতে হবে। যদি পুরাতন মালামাল ক্রয় করেন তবে টাকার পরিমাণ আরো কম লাগবে।

কিভাবে নির্মাণ সামগ্রী বিক্রির ব্যবসাটি শুরু করবেন

প্রথমেই এই ব্যবসাটি শুরু করার জন্য একটি উপযুক্ত স্থান নির্বাচন করা জরুরী। তারপর কোন পণ্যটি তৈরী করবেন তা নির্ধারণ করতে হবে। সিমেন্টবালি ও পানি পরিমাণমতে মিশিয়ে এই সকল পণ্য গুলো তৈরী করত হয়। পরিমাণমতো কাচাঁমাল ডাইসে ঢেলে,কাচাঁমাল শক্ত হয়ে গেলেই তৈরী পণ্য তৈরী হয়ে যায়। ডাইসের ভিতর কেরোসিন মিশিয়ে নিতে হবে যেন কাচাঁমাল ডাইসে লেগে না যায়। পণ্য তৈরী হয়ে গেলে পণ্যটি ৪ বা ৫ দিন পানিতে ডুবিয়ে রাখতে। তারপর এই পণ্য গুলো বাজারজাত করা হয়ে থাকে।

গ্রাহক কে হবেন?

যারা বাড়ি- ঘর নির্মাণ করেন সে সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানই এই ব্যবসার প্রধান গ্রাহক। এই ব্যবসায় গ্রাহকই আপনার কাছে ছুটে আসবে। তাই গ্রাহক পাবেন কি পাবেন না এই সম্যাসা নেই। তবে হ্যা, কাজের মান খারাপ হলে নতুন গ্রাহক পেতে সম্যাসা হবে।

বিশেষ যোগ্যতা: এই ব্যবসাটি শুরু করতে তেমন কোন যোগ্যতার দরকার হয় না।

সম্ভাব্য লাভঃ এই ব্যবসাটি শুরু করে প্রতি মাসে ২২০০০ টাকা থেকে ৫০০০০ টাকা পর্যন্ত লাভ করা যা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here