ছাদের বাগানে টবের ব্যবহার ও ভাল ফল পেতে যাহা করণীয়

0
258

গাছের সাইজ ও গাছের বর্ধনশীলতা বিবেচনায় টব বাছাই বা নির্বাচন করা উচিত। যাতে পরবর্তী প্রয়োজনে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে টব স্থানান্তর করা যায়। মনে রাখতে হবে গাছ নিদৃষ্ট টবের অল্পমাটি থেকেই তার  প্রয়োজনীয় খাদ্য পুষ্টি গ্রহণ করে থাকে। ছাদে ব্যবহার উপযোগী মাটির টব, বালতি, কনটেইনার, ড্রাম ইত্যাদি ছাড়াও বিভিন্ন রং এর প্লাস্টিক টব ব্যবহার করতে দেখা যায়।

টবে অল্প পরিমান জায়গায় গাছের জন্য প্রয়োজনীয় খাবার কমবেশী হলে গাছের যথাযথ বৃদ্ধি ব্যহত হওয়ার আশংকা থাকে। এক্ষেত্রে গাছের খাদ্য ও পুষ্টির জন্য সর্তকতা অবলম্বন জরুরী। টবে মাটির পরিমানের অর্ধেক গোবর বা পঁচা জৈব সারের মিশ্রন হবে। আজ কালকার বাজারে মাটি কিনতে পাওয়া যায়। ঐ সমস্ত মাটি কিনেও টবে ব্যবহার করা যায়। এছাড়া বাগানের জন্য মিশ্র সাবও খৌল ও গুটি ইউরিয়া ব্যবহার করা যেতে পারে।

বাড়ীর ছাদে ফলমূল শাক-সবজির চাষ পক্ষান্তরে মাঠে চাষের মধ্যে অনেক পার্থক্য বিরাজমান। তাই ছাদের বাগানে নিয়মিত পরিচর্যা অপরিহায্য। প্রথমত পর্যবেক্ষণ করা যে, গাছের পুরাতন বা পাকা পাতা, রোগ গ্রস্থ পাতা বা রোগ গ্রস্থ গাছ দেখা যায় কিনা এই জাতীয় পাতা বা গাছ থাকলে অনত্র সরিয়ে ফেলার ব্যবস্থা করা। গাছের অবস্থা বুঝে প্রয়োজনীয় ও পরিমান মত সার প্রয়োগ করা। সার কখনো কখনো পানিতে মিশিয়ে ছিটিয়ে দেওয়া হয়। আবার গুটি সার প্রয়োগ করা হয়। এখন বাজারে প্যাকেটজাত কম্পোষ্ট সার পাওয়া যায়। প্যাকেট জাত কম্পোষ্ট সারের চাহিদা দিনে দিনে বেড়েই চলছে।

আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে গাছে রোগ বালাই দেখা দিতে পারে। গাছে রোগ বালাই এর উপদ্রব থেকে সর্তক থাকা। রোগ বালাই দেখা দিলে বালাই নাশক ব্যবহার করা। এক্ষেত্রে কাছাকাছি কৃষি অফিসের পরামর্শ নেওয়া উত্তম।

ছাদের গাছে পানি খুবই জরুরী। টবের মাটির আদ্রতা কমে গিয়ে গাছ ঢলে পরে। আবার পানি জমে গিয়ে বেশী আদ্রতার কারণে গাছ ঢলে পরে মারা যায়। এ ক্ষেত্রে খামারীকে সচেতন হতে হবে। বাগানে পানি দেওয়ার কাজে ঝাঝরি ব্যবহার করা হয়। পাইপ দিয়ে পানি দেওয়ার সময় পাইপের মাথা চাপ দিয়ে না ধরিলে জোরে পানি প্রবাহের ফলে টবের মাটি উঠে দিয়ে গাছের ক্ষতি করে। তাই পাইপ দিয়ে পানি দেওয়ার সময় পাইপের মাথা চাপ দিয়ে ধরে হালকা ভাবে বৃষ্টির মত পানি সব জায়গায় ছিটিয়ে দেওয়া। ্এছাড়া পিচকারি দিয়েও গাছে পানি ছিটানো যায়। এক্ষেত্রে নিজস্ব সুবিধা অনুযায়ী অন্যকোন উদ্ভাবনী পদ্ধতিও ব্যবহার করা যায়।

বিকল্প আয়ের উৎস বাড়ির ছাদে বাগান

ছাদের গাছের ক্ষতিকারক এমন কোন বড় গাছ বা বাঁশ গাছ লাগানো যাবে না। ছাদে বাগানের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে এই উপলব্দি করানো যে কোথাও কারও এক ইঞ্চি জায়গা ও যেন অনাবদী না থাকে। ছাদের বাগানে ফল চাষের ক্ষেত্রে হাইব্রিড বা কলমের চারা বেশী ভালো। যার মধ্যে লেবু, পেয়ারা, আম, জামরুল, লিচু, ডালিম, বেদানা, কমলা, জলপাই, মাল্টা ইত্যাদি। এই সকল গাছে  সৌন্দয্য বৃদ্ধির সাথে জায়গার পরিমান কম, খরচ হয়। ফুল ও শাকসবজির ক্ষেত্রে দেশীয় সব ফুল ও শাকসবজি, উৎপাদন করা যায়। এতে জায়গা যেমন কম লাগে তেমনি আশানুরূপ ফল পাওয়া যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here