কি কি কারনে নতুন বিনিয়োগকারী শেয়ার বাজারে লস খায়

শেয়ার বাজার বা পুঁজি বাজার টাকা বানোর মেশিন তার একই সাথে টাকা লস হওয়ার অন্যতম মাধ্যম। আজকের এই পোষ্ট এ আমরা নতুন বিনিয়োগকারী কেন শেয়ার বাজারে লস খায় তা নিয়ে কথা বলব। আশা করছি লেখাটি নতুন বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ এর দরজা খুলে দিতে সাহায্য করবে।

অল্প কথায় বলতে গেলে বাজার সম্পর্কে যাদের ধরনা কম। লোক মুখে শুনে সেকেন্ডারী মার্কেটে বিনিয়োগ করে তাদের কম বেশী ক্ষতির মুখে পড়তে হয়। একজন নতুন বিনিয়োগকারী হিসাবে যেই ১০টি কারনে লস খেতে পারে তাহল নিন্মরুপ।

১। শেয়ার বাজার সম্পর্কে জ্ঞানের অভাব বা বোঝার অক্ষমতা।

২। অল্প পুঁজি নিয়ে বেশী ঝুঁকিপূর্ণ শেয়ার ক্রয় করা।

৩। বেশী লাভের আশায় সঠিক সময়ে বিক্রি না করে শেয়ার ধরে রাখা।

৪। ধৈয্যের অভাব।

৫। অতিরিক্ত ভয় পাওয়া।

৬। ঝুঁকি বহন করার মাএা হিসাব না করে খামখেয়ালী ভাবে ক্রয় বিক্রয় করা।

৭। গুজব তাড়িত হয়ে ক্রয় বা বিক্রয় করা।

৮। কমিশন কম দেখে কোন দুর্বল ব্রকার হাউসে বাই সেই করা।

৯। কোন কম্পানির কোন সংবাদ এর সঠিক ব্যাখ্যা ভুল বোঝা।

১০। খুব কম সময়ের জন্য শেয়ার ব্যবসা করতে আসা।

বাজারের সঙ্গে যোগাযোগ না রাখাকে Lack of Discipline বলে। যখন বিক্রয় করার সময়, তখন কিনতে যাওয়া অন্যতম কারন লস খাওয়ার। আবার সেই সাথে যখন বিক্রি করা উচিত তখন অতিরিক্ত লাভের আশায় শেয়ার ধরে রাখলে লস হতে পারে।

সঠিক ব্রকার হাউস নিধারন করতে পারলে অনেক দিক থেকে একটু সেইফ থাকা যায়। যাদের ভাল সুনার আছে, যাদের দক্ষ জনবল আছে এমন ব্রকার হাউস বেছে এই ব্যবসায় আসা উচিত। অনেক শেয়ার অভিজ্ঞজন বলেন- বন্ধু, প্রতিবেশী, বিশেষ করে ফেইসবুকে কিছু মানুষের ভুল তথ্যর জন্য অনেকে পুঁজি হারিয়ে বাজার থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। যার একবার অনেক টাকা লস খায় তাদের মধ্যে দুই ধরনের মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ করা যায়।

১। যেই টাকা হারিয়েছে সেই টাকা আবার তুলতে এসে আবার লস করে বসে থাকে।

২। শেয়ার বাজার সম্পর্কে একটি নেতিবাচক ধারনা জন্মায় এবং তারা আর শেয়ার বাজারে ফিরে আসতে চায় না।

একজন নতুন বিনিয়োগকারীর উচিত প্রথমে আইপিও এর মাধ্যে মার্কেট এ প্রবেশ কারা। তার পর যখন আস্তে আস্তে অভিজ্ঞতা হবে তখন বিনিয়োগ মাএয়া বাড়ানো। তবে অবশ্যই অতিরিক্ত ভয় ও অতিরিক্ত লোভ এই দুইটাই টাকা লস এর মাএয়া বহুগুন বাড়িয়ে দেয়। সবার বিনিয়োগ শভ হোক। নিত্য নতুন শেয়ার মার্কেট নিয়ে আপডেট পেতে আমাদের ফেইজবুক পেইজে লাইক দিয়ে একটিভ থাকুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here