পার্ট-টাইম সাইড বিজনেস আইডিয়া

0
577

পার্ট-টাইম সাইড বিজনেস আইডিয়া

সব উদ্যোক্তাদেরই ব্যবসার মালিক হওয়ার জন্য সম্পূর্ণ সময় ব্যয় করতে হয় না। কিছু পার্ট টাইম সাইড বিজনেস রয়েছে যে গুলোতে আপনি সাইড ব্যবসা হিসাবে কাজ করতে পারেন। যদি আপনি মন স্থির করে ফেলেন যে আপনি এই ধরনের ব্যবসা করতে ইচ্ছুক তাহলে আমরা আপনার জন্য পার্ট-টাইম সাইড বিজনেস আইডিয়া তালিকা নিয়ে এসেছি। যাতে আপনি সহজে একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন। নিচে ধারণা গুলো ধারাবাহিক ভাবে দেওয়া হল।

টি-শার্ট ডিজাইনার

আপনি যদি পোশাক ডিজাইন করায় দক্ষ ব্যাক্তি হয়ে থাকেন তাহলে আপনি টি-শার্ট ডিজাইন করে আপনার আংশিক সময়ে পার্শ্ব বা সাইড ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এটি একটি লাভজনক ব্যবসার ধারণা।

ভার্চুয়াল সহকারী

বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য মানুষ ভার্চুয়াল সহকারীদেরকে ভাড়া করে থাকে। আপনি যদি এই সেবাটি প্রদানে আগ্রহী হন তাহলে আপনি আপনার অতিরিক্ত সময়ে পার্ট-টাইম ব্যবসা হিসেবে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। আপনি আপনার বাড়ি থেকে আরামদায়ক পরিবেশে গ্রাহকদেরকে উক্ত সেবাটি প্রদান করতে পারেন।

ব্লগার

আপনি যদি সত্যিই যে কোন বিষয় নিয়ে লিখতে পারদর্শী হয়ে থাকেন তাহলে আপনি যে কোন নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে নিজেই একটি ব্লগ লেখা শুরু করতে পারেন। এটি একটি বুদ্ধিদীপ্ত ব্যবসার ধারণা এতে কোন সন্দেহ নেই। অথবা আপনি বিভিন্ন কোম্পানী বা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের হয়ে ব্লগ লেখা শুরু করতে পারেন।

ফেইসবুক বা অনলাইন বিক্রেতা

নানান ধরনের পণ্য বিশেষ করে মেয়েদের জামা, ছেলেদের পাঞ্জাবি ইত্যাদি বিক্রির জন্য আপনি সহজেই ফেইসবুক পেজ খুলতে পারবেন। সেখান থেকে আপনি আপনার পণ্যের অর্ডার গুলো গ্রহণ করে ভোক্তাদের কাঙ্খিত পন্য গুলো সহজেই সরবরাহের দায়িত্ব নিতে পারবেন।

ফটোগ্রাফার

আপনি যদি একজন ভাল ফটোগ্রাফি বিশারদ হয়ে থাকেন তাহলে আপনি আপনার অতিরিক্ত সময়কে ব্যবহার করে এই পার্ট টাইম সাইড বিজনেস শুরু করতে পারেন।  এটি বর্তমান যুগের একটি জনপ্রিয় ব্যবসাক্ষেত্র। আর এ জন্য আপনাকে ফটো তোলার যাবতীয় সরঞ্জাম গুলো সংগ্রহ করতে হবে। সপ্তাহের যে কোন সুবিধাজনক সময়ে আপনি গ্রাহকদের চাহিদা মতো সেবা প্রদান করে এই ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবস্থাপক

আপনি যে কোন প্রতিষ্ঠানের হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলোর ব্যবস্থাপক বা পরামর্শক হিসেবেও কাজ করতে পারেন। চাকুরী বা অন্য কোন ব্যবসার পাশাপাশি আপনি এই ব্যবসাটি সহজেই পরিচালনা করতে পারবেন।

ভ্রমন গাইড

আপনার এলাকা যদি দেশের বিখ্যাত বা পর্যটনের স্থান গুলোর সাথে হয় যেই খানে অনেক পর্যটক ঘুরতে আসে আপনি তাদের জন্য বিভিন্ন গাইড প্রদান করেও ব্যবসা স্থাপন করতে পারেন। আপনি তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য গুলো বা তাদের করনীয় দিক নির্দেশনা গুলোও প্রদান করতে পারেন| তাছাড়া আপনি অনলাইনের বিভিন্ন মাধ্যমে আপনার সেবাটি তুলে ধরতে পারেন।  যা আপনি ঘরে বসেই পরিচালনা করতে পারেন।

ওয়েবসাইট ডিজাইন

আপনার যদি অনলাইন সম্পর্কে কারিগরী জ্ঞান থাকে তাহলে আপনি ওয়েব ডিজাইনার হিসেবেও পার্শ্ব ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আপনার অন্যান্য কাজের ফাঁকে ফাঁকে আপনি এই ব্যবসাটি চালাতে পারবেন। বর্তমানে এটি একটি উচ্চ আকাঙ্খিত ব্যবসার উদ্যোগ। একজন সফল ব্যবসায়ী ১৪ টি আদর্শ গুণাবলী

কম্পিউটার মেরামত সেবা

আপনি যদি কম্পিউটার এবং কারিগরী জ্ঞানসম্পন্ন  হয়ে থাকেন তাহলে আপনি কম্পিউটার মেরামত করেও আপনার অবসর সময়কে কাজে লাগাতে পারেন। আপনি আপনার সম্প্রদায়ের কম্পিউটার ব্যবহারীদের টার্গেট করে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। কম্পিউটার মেরামতের পাশাপাশি কম্পিউটারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশও বিক্রি করা যেতে পারে।

গৃহ শিক্ষক

আপনি যদি জ্ঞান প্রদান উপভোগ করে থাকেন তাহলে আপনি অন্যান্য কর্মের পাশাপাশি গৃহ শিক্ষক সেবাও প্রদান করতে পারেন। প্রাতিষ্ঠানিক বিভিন্ন বিষয়ে দুর্বল শিক্ষার্থীদের মাঝে আপনার জ্ঞানকে ভাগ করে আপনি এই ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here