ভ্রমণ প্রেমিদের জন্য লাভজনক ব্যবসা ধারণা

0
336

ভ্রমণ প্রেমিদের জন্য কিছু লাভজনক ব্যবসা ধারণা

ব্যবসা চলা অবস্থায় আপনি কখনো নিয়মিত ভ্রমণ করতে পছন্দ  বা পারবেন না। বিভিন্ন প্রকার অনেক ব্যবসা রয়েছে যা আপনি ভ্রমণ কালীন অবস্থায় করতে পারেন এবং আপনি ভ্রমণরত অবস্থায় পর্যাপ্ত পরিমাণ কাজ করতে পারবেন। সুতরাং আপনি যদি ব্যবসা শুরু করতে চান যা আপনি ভ্রমণকালীন অবস্থায় পরিচালনা করবেন তবে আর কোন দিক না তাকিয়ে নিচের ভ্রমণ বান্ধব লাভজনক ব্যবসা গুলো থেকে ধারণা নিতে পারেন।

ব্লগার

আপনি ভ্রমণপ্রেমি হন তবে ভ্রমণ ব্লগার হওয়া আপনার জন্য অত্যন্ত কার্যকর একটি ব্যবসা হতে পারে। একটি ভ্রমণ ব্লগিং ব্যবসা শুরু করতে আপনি আপনার ভ্রমণ অভিজ্ঞতা তুলে ধরে নিজস্ব ব্লগ চালু করতে পারেন এবং এর মাধ্যমে ভ্রমণ বিষয়ক দিক নির্দেশনা প্রদান করতে পারেন। এটি শুরু করতে বাড়তি কোন ঝামেলা পোঁহাতে হয় না।

পর্যটন ফটোগ্রাফার

আপনার যদি ছবি তুলার অভিজ্ঞতা থাকে এবং প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম থাকে তবে আপনি বিবাহ কিংবা অনুরূপ কোনো কিছু অনুষ্ঠানের ছবি তুলার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করতে পারেন। আপনি যদি ভ্রমণ পছন্দ করেন তবে আপনি আপনার ছবি তুলার সেবা গ্রহণের জন্য বিবাহিত দম্পতিদের আহবান করাতে পারেন। তাছাড়া আপনি আপনার ছবি নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে ডাউনলোড নিবন্ধন দ্বারা বিক্রি করতে পারেন। বর্তমানে এটি একটি জনপ্রিয় ব্যবসা ধারণা।

অনুবাদক

আপনার যদি বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা থাকে এবং বিভিন্ন ভাষা জানা থাকে তবে আপনার জন্য একজন অনুবাদক হিসেবে কাজ করার ভালো সুযোগ রয়েছে। আপনি পর্যটকদের সাথে দুভাষী হিসেবে দূরবর্তী যেকোনো স্থানে কাজ করতে পারেন।

ভাষা শিক্ষক

যদি আপনার অন্য ভাষা সম্পর্কে জ্ঞান থাকে তবে সেবা প্রদানের জন্য এটি আরেকটি সুযোগ হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি অন্য ভাষাভাষি লোকদের ইংরেজি ভাষাবা অন্য যে ভাষায় আপনি দক্ষ সে ভাষা শিখাতে পারেন।

ভ্রমণ বিষয়ক পরামর্শক

গত কয়েক বছর ধরে বড় বড় ভ্রমণ সংস্থাগুলো ব্যবসায় টিকে থাকার জন্য লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে সেখানে ভোক্তা নেই। বরং বর্তমানে প্রচুর ভোক্তা রয়েছে যারা তাদের ভ্রমণ সেবা সুলভ মূল্যে গ্রহণ করতে চায়। আপনি যদি একজন অভিজ্ঞ পর্যটক হন তবে আপনি আপনার অভিজ্ঞতা অন্য ভ্রমণকারীদের প্রদানের মাধ্যমে ভ্রমণ পরামর্শকের কাজ করতে পারেন।

অনলাইন প্রশিক্ষক

মূলত মানুষকে যে কোনো কিছু শিখানোর আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেন। আপনি আপনার পরিষেবার বিপণনের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলো ব্যবহার করতে পারেন। আপনি চাইলে নির্দিষ্ট করে মানুষকে শিখাতে পারেন কিভাবে ভ্রমণে অর্থ বাচানো যায়। যদিও আপনার নির্বাচিত বিষয় বস্তু ভ্রমণের সাথে বিশেষ ভাবে সম্পৃক্ত না থাকে তবুও যেকোনো স্থান থেকে এই অনলাইন কার্যক্রমটি স্থাপন ও নিরক্ষণ করতে পারেন।

হস্ত নির্মিত দোকানের মালিক

ডারাজ ও আজকের ডিল এর মত অনলাইন প্ল্যাটফর্ম কল্যাণে খুব সহজেই হাতে তৈরি জিনিস যেকোনো স্থান হতে বিক্রি করা যাচ্ছে। তাছাড়া আপনিও নিপুণভাবে হস্ত নির্মিত জিনিস বিভিন্ন মেলা ও অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এবং এই সব অনলাইন প্লাটফর্ম গুলো ব্যবহার করে দেশে-বিদেশে বিক্রি করতে পারেন। উভয় উপায়ে ভ্রমণকালীন সময়ে আপনি ভালো ব্যবসা সুবিধা লাভ করতে পারেন।ভাল লাগতে পারেঃ  পার্ট-টাইম সাইড বিজনেস আইডিয়া

ফ্রিল্যান্সার

আপনি আপনার লেখা, ডিজাইন অথবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সেবা প্রদানের জন্য যেকোনো স্থান হতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে চুক্তি ভিত্তিতে কাজ করার আহ্বান করতে পারেন। বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে ভ্রমণকালীন সময়ে আপনি এই কাজ গুলো করতে পারবেন।

লেখক

চূড়ান্তভাবে, বই লেখালেখির কাজ আপনি যেকোনো স্থানে করতে পারবেন। কিন্তু ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রায় সকল স্থানে বসে আপনি প্রকাশ ও প্রসার ঘটাতে পারবেন। যদি আপনি ভ্রমণ বিষয়ক বিশেষজ্ঞ হন তবে এ বিষয়ে আপনি বিভিন্ন বই লিখা শুরু করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here