যে ৮টি সফল ব্যবসা মহিলা উদ্যোক্তাদের জন্য সব থেকে উপযোগী

0
273

উদ্দ্যোক্তার ভুমিকায় নারী অংশগ্রহণ দিনদিন বেড়েই চলেছে। আজকাল মহিলারা শুধু রান্নাঘরেই সীমাবদ্ধ থাকে না।  বিভিন্ন বাহিরের কর্মকান্ডেও লিপ্ত হচ্ছে। মহিলাদের মধ্যে অনেক সৃজনশীল জ্ঞান রয়েছে। আর সেই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে তারা বিভিন্ন ধরনের উদ্ভোধনী ব্যবসা পরিচালনা করতে পারেন। তাই আমরা তাদের জন্য কয়েকটি উদ্ভোধনী ও সফল ব্যবসায়িক ধারণা নিয়ে এসেছি যাতে তারা খুব সহজে একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

                                                                                                                             বিউটি পার্লার  

সকল মহিলাদের জন্য বিউটি পার্লার হচ্ছে একটি সাধারণ, সহজ এবং জনপ্রিয় ব্যবসার ধারণা। আজকাল নারীরা তাদের সৌন্দর্য্যরে বহি:প্রকাশের জন্য বিভিন্ন পার্লারের সাহায্য নিচ্ছে। আপনি যদি এই রকম একটি ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী হন তাহলে আপনি আপনার এলাকায় একটি পার্লার স্থাপন করতে পারেন। এটি আপনার জন্য অর্থ আয়ের একটি ভালো উৎস হতে পারে। এজন্য আপনাকে কারিগরী দক্ষতা কাজে লাগাতে হবে। আপনি ভাল ভাল পন্যের সরবরাহ করে গ্রাহকদের দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারেন। তবে এই ব্যবসাটি শুরু করার জন্য আপনাকে প্রথমে বিনোয়োগও করতে হবে।

পরামর্শকারী

আপনার যদি তথ্য প্রযুক্তি, অর্থ, ব্যবসা বা সামাজিক মিডিয়া সম্পর্কে জ্ঞান থাকে তাহলে আপনি বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সাথে আপনার জ্ঞান ভাগ করেও একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার নিজস্ব মতামত গুলো প্রকাশ করার সুযোগ পাবেন। এটি কম বিনিয়োগে অধিক মুনাফা আয়ের সহজ পন্থা। এই ব্যবসাটি শুরু করে আপনি আপনার জ্ঞানের দক্ষতাকে সহজে প্রকাশ করতে পারেন।

বুটিকস

মহিলারা প্রায়ই ফ্যাশন এর প্রতি নির্ভর করে। আর এই ফ্যাশন প্রবণতা গুলো প্রতিনিয়তই পরিবর্তন হচ্ছে। আপনি যদি একজন ফ্যাশন সচেতন নারী হয়ে থাকেন এবং আপনার যদি বিভিন্ন পোশাকের ডিজাইন সম্পর্কে দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি একটি বুটিকস সেবা ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এখানে আপনি কম বিনোয়োগে অধিক মুনাফা আয়ের সুযোগ পাবেন। উদ্ভোধনী ব্যবসার মধ্যে এটি নারীদের জন্য সর্বোত্তম ব্যবসার ধারনা হতে পারে।

ফ্রীল্যান্সিং

যে সব মহিলারা যে কোন জায়গায় কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে বা আরামদায়ক মনে করে সেইসব মহিলাদের জন্য ফ্রীল্যান্সিং ব্যবসাটি হচ্ছে সবচেয়ে ভাল ব্যবসার সুযোগ। এই ব্যবসাটি শুরু করতে আপনাকে অবশ্যই অনলাইনের সাহায্য নিতে হবে। আর এটা হচ্ছে অনলাইন ভিত্তিক ব্যবসায়ের মধ্যে সবচেয়ে বড় কাজের উদ্যোগ যা কম বিনিয়োগেই শুরু করা যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য জনপ্রিয় সাইট গুলোতে কাজের অনুসন্ধান করতে হবে।

ফিটনেস কেন্দ্র

বর্তমানে মানুষ স্বাস্থ্যকে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। আজকাল সব লোকই তাদের স্বাস্থের প্রতি অধিক মানোযোগী এবং তাদের স্বাস্থ্য পুনর্গঠনের জন্য বিভিন্ন ফিটনেস কেন্দ্রের দিকে আগ্রহী হচ্ছে। আপনি চাইলে আপনার এলাকায় এই রকম একটি কেন্দ্র স্থাপন করে ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

শিশু যত্ন কেন্দ্র

প্রত্যেক মহিলারাই বাচ্চাদের অনেক ভালবাসে এবং প্রত্যেক মহিলাদের জন্য বাচ্চা হচ্ছে আল্লাহর তায়ালার একটি উপহার। আপনি সেই ভালবাসা আর যতœকে পুঁজি করে একটি শিশু যতœ সেন্টার খুলতে পারেন।  যেখানে আপনি প্রত্যেক বাচ্চাদের মায়েদের মত করে লালন পালন এর দায়িত্ব গ্রহন করতে পারেন্। প্রত্যেক মহিলাদের জন্য এটা একটি আদর্শ স্বরূপ এবং সর্বোত্তম ব্যবসার ধারণা।

গৃহে তৈরী পন্য

বর্তমানে অনেকেই বাড়ির তৈরী পন্য বা হাতের তৈরী পন্যের দিকে বেশি আকর্ষিত হচ্ছে। একজন মহিলা তার বাড়ি বসেই তার সৃষ্টিশীল জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে নিজের হাতেই বিভিন্ন ধরনের পন্য তৈরী করতে পারে। সেই পন্য গুলো বিভিন্ন দোকানে সরবরাহ করে অধিক মুনাফা অর্জন করতে পারেন। তার জন্য যে আপনার অনেক বিনোয়োগের দরকার তেমন নয় আপনি কম খরচেও এই কাজটি শুরু করতে পারবেন। একটি ঝুকিঁ মুক্ত ব্যবসার ধারণা।

আরো পড়ুনঃ যে ব্যবসায় ৬ লক্ষ টাকা বিনিয়োগে মাসে ২৫০০০ টাকা আয় করা যায়

হস্তশিল্প বিক্রেতা

একজন মহিলা তার হাতের তৈরী পন্য গুলো বিক্রির জন্য ভাল বিক্রেতা হিসেবেও কাজ করতে পারেন। আর তা বিক্রির জন্য আপনি উচ্চ লেবেলের  মার্কেট প্লেইস গুলোতে বিক্রি করতে পারেন। সেখানে আপনার পন্য গুলো অতি সহজে বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

পরিশেষে বলা যায় যে, প্রত্যেক মহিলাদেরই নিজস্ব একটি চাকরীর স্বপ্ন রয়েছে। কিন্তু বর্তমানে চাকরী পাওয়াটা অনেক কঠিন ব্যাপার হয়ে পরেছে যা দিন দিন আরও কঠিনতর হচ্ছে। তাই আমরা আপনাকে উপরে যেই ব্যবসায়িক ধারণা গুলো প্রদান করেছি আপনি যদি সেইগুলো অনুসরণ করেন তাহলে আপনি আপনার উদ্ভোধনী জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে একটি সাফল্যময় ব্যবসা স্থাপন করতে সক্ষম হবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here